• শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১১:৪২ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
ব্রেকিং নিউজঃ
বাগমারায় বজ্রপাতে প্রাণ গেল দুর্গাপুরের দুই যুবকের পঞ্চগড়ে করোনা সংক্রামণ ও প্রতিরোধ কমিটির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত রহনপুরে ভারতীয় হনুমানের কামড়ে আহত ১ নাচোলে ধান কাটতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ শ্রমিক,আহত ১০ জয়নগরবাসীর সাথে চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ ফিরোজ আহমেদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় বাংলাদেশ হিন্দু যুব পরিষদের আশাশুনি উপজেলা শাখার কমিটি গঠন মধুপুরের বহুল আলোচিত পুলিদা হত্যা মামলার প্রধান আসামি ৪১দিন পর গ্রেফতার পঞ্চগড়ের বোদায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু নড়াইলে ঈদ ভ্রমণে গিয়ে নসিমন দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৩ পঞ্চগড়ে সিএনজি মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে ৫ জন আহত
নোটিশঃ
যুগান্তর টাইমস - এ সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...




টাঙ্গাইলের মধুপুরে ঝরে পড়া ২হাজার শিক্ষার্থী পাবে শিক্ষার আলো

আঃ হামিদ মধুপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধিঃ / ৫০ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১




টাংগাইলের মধুপুরে আউট অব স্কুল চিলড্রেন এডুকেশন প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন বিষয়ক এক অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উদয় আয়োজিত এবং বাংলার মেলা এর সহযোগিতায় উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষে উক্ত অবহিতকরন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মধুপুর উপজেলা শিক্ষা, সমাজসেবা ও মহিলা বিষয়ক সরকারী কর্মকর্তা সহ উক্ত সেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

লেখাপড়ায় অমনোযোগী,বিদ্যালয়ে ভর্তি না হওয়া ও যে সকল শিশু বিদ্যালয়ে কিছু দিন পড়াশোনা করে পড়াশোনা বন্ধ করে দিয়েছে এবং যে সকল অভিভাবক পড়ালেখার খরচ চালাতে না পেরে ছেলে-মেয়েদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন, সেই সকল ঝরে পড়া অমনোযোগী প্রায় ২ হাজার শিক্ষার্থী পাবে এই শিক্ষার আলো।

এই বিদ্যালয়ে ৮থেকে ১৪বছরের ছেলে মেয়েদেরকে পাঠদানের পাশাপাশি শিখানো হবে চারুকলা, নৃত্য, সংগীত, কবিতা আবৃতি সহ থাকবে বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহনের সুযোগ।

মধুপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে বিদ্যালয় তৈরী করে ঝরে পড়া শিশুদেরকে লেখাপড়ার সমস্ত উপকরণ, স্কুল ড্রেস ও প্রতিমাসে ১২০ টাকা উপবৃত্তি পাবে প্রত্যেক শিক্ষার্থী।

উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে আউট অব স্কুল চিলড্রেন এডুকেশন প্রোগ্রাম বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেম্বার ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন সেচ্ছাসেবী সংগঠন উদয়।

প্রতিটি বিদ্যালয়ে বিশেষ প্রশিক্ষন প্রাপ্ত অভিজ্ঞ ১জন শিক্ষক২০/৩০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে সকাল ১০টা হতে দুপুর ১টা পর্ষন্ত মোট ৩ঘন্টা সপ্তাহে ৬দিন পাঠ্যদান করবেন।২০২৩ সালের জুন মাস পর্ষন্ত চলবে এই পাঠদান কর্মসূচী।

প্রতিটি উপজেলায় নিয়োগপ্রাপ্ত ১জন ম্যানেজার ও ৫জন সুপারভাইজার এই প্রকল্পে কাজ করবেন।এই কর্মসূচী উপলক্ষ্যে মধুপুর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ৭০টি বিদ্যালয় তৈরি করা হচ্ছে এবং ইতিমধ্যে ছাত্র/ছাত্রী যাছাই বাছাইয়ের কাজ শুরু করেছেন এই সংস্থাটি।

সরকারের সাথে সংগতি রেখেই এই শিক্ষা কার্ষক্রম পরিচালিত হবে এবং এই কার্ষক্রম সফল হলে শিক্ষার মান অনেকাংশে বেড়ে যাবে বলে মনে করেন সেচ্ছাসেবী সংগঠন উদয় এর পরিচালক।

উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!